| |

থাই গুহা, প্রথম দফায় তিন কিশোর উদ্ধার

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ও সর্বশেষ খবর পেতে আ্যপসটি ইনস্টল করুন

প্রকাশিতঃ 11:26 pm | July 08, 2018

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলের গুহায় দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে আটকা ১২ কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচকে উদ্ধারে চূড়ান্ত অভিযান শুরুর পর তিন কিশোরকে উদ্ধারের খবর দিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম। রোববার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় ১৩ বিদেশি ডুবুরি ও থাইল্যান্ডের নৌবাহিনীর অভিজাত শাখা থাই নেভি সিলের পাঁচ সদস্য এই উদ্ধার অভিযান শুরু করেন।

স্থানীয় গণমাধ্যম ব্যাংকক পোস্ট বলছে, অভিযানের প্রথম দফায় থ্যাম লুয়াং গুহার প্রবেশপথের কাছাকাছি দুই কিশোরকে নিয়ে আসছে উদ্ধারকারীরা। তবে উদ্ধার মিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কোনো কর্মকর্তা এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করতে পারেননি বলে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে।

থাই টেলিভিশন চ্যানেলের খবরে বলা হয়েছে, স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৩৭ মিনিটে প্রথম কিশোরকে গুহা থেকে বের করে আনার পা হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। পরে ৫টা ৫০ মিনিটে দ্বিতীয় কিশোরকে নিয়ে আসেন উদ্ধারকারীরা। এর ১৬ মিনিট পর তৃতীয় কিশোরকেও গুহার ভেতর থেকে বাইরে নিয়ে আসা হয়। পরে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উদ্ধার মিশনের প্রধান ন্যারংস্যাক ওসোত্তানাকর্ন বলেন, গুহার উদ্ধার পথের জটিলতা ও অভিযানে নানামূখী সমস্যার কারণে এটা বলা যাচ্ছে না যে, কিশোরদের প্রথম দলকে বের করে আনতে ঠিক কত সময় লাগতে পারে।

গুহায় ১৮ সদস্যের উদ্ধারকারী দলে থাকা চিকিৎসকরা শিশুদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর প্রথম কাকে বের করে আনা হবে সেটি নির্ধারণ করবেন। তবে প্রথমবারের অভিযানে ঠিক কতজনকে বের করে নিয়ে আসা সম্ভব হবে সেটিও পরিষ্কার নয়।

উদ্ধার মিশনের যৌথ কমান্ড সেন্টারের প্রধান ন্যারংস্যাক ওসোত্তানাকর্ন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, ‘থাই নেভি সিলের পাঁচস সদস্যসহ বিদেশি ১৩ ডুবুরি সকাল ১০টায় গুহায় প্রবেশ করেছেন। এর মধ্যে ১০জন চেম্বার-৯ (যেখানে কিশোররা আটকা আছেন) ও মাঝপথে ঝুঁকিপূর্ণ স্থান হিসেবে চিহ্নিত চেম্বার-৬ এর উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেছেন। অন্য তিন ডুবুরি অভিযানে যোগ দিয়েছেন স্থানীয় সময় দুপুর ২টায়।

এছাড়াও থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, চীন এবং ইউরোপ থেকে অংশ নেয়া ডুবুরিদের অপর একটি দল গুহার প্রবেশপথ চেম্বার-৩ এ অবস্থান করছেন। চেম্বার-২ এবং চেম্বার-৩ এর মাঝে সংকীর্ণ ও উঁচু-নিচু জলমগ্ন পথে রশি বসিয়ে সহায়তা করবে এই দলটি।

দীর্ঘ প্রায় ৪ কিলোমিটার সংকীর্ণ ও উঁচু-নিচু জলমগ্ন পথ পাড়ি দিয়ে এই কিশোররা শেষ পর্যন্ত বের হয়ে আসতে পারবে কি-না সেটি নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক গুহা বিশেষজ্ঞরা।

গুহায় উদ্ধারকারীদের এ অগ্নিপরীক্ষা দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। এই কিশোরদের উদ্ধার অভিযান সফল হলে দেশটির আগামী বছরের সাধারণ নির্বাচনে থাই জান্তা সরকারের জন্য ইতিবাচক ফল বয়ে নিতে আসতে পারে।

আগামী দুই সপ্তাহ উত্তর থাইল্যান্ডে ভারী বর্ষণ হতে পারে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে। রোববার সকালের দিকেও গুহার পাশ্ববর্তী এলাকায় বৃষ্টিপাত হয়েছে। সময় এবং বন্যার পানির সঙ্গে লড়াই করে কিশোরদের বাঁচানোর প্রাণপন চেষ্টা চালানো হচ্ছে। ভারী বর্ষণে কিশোরদের আটকাস্থান তলিয়ে যাওয়ার শঙ্কায় আজ চূড়ান্ত অভিযান শুরু করা হয়।

গত ২৩ জুন থেকে থাইল্যান্ডের চিয়াং রাই প্রদেশের থ্যাম লুয়াং গুহায় আটকা রয়েছে স্থানীয় কিশোর ফুটবল দলের ১১ সদস্য ও তাদের কোচ। প্রথম দিকে আগামী ডিসেম্বর অথবা জানুয়ারির আগে পানি না কমিয়ে যাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার ঝুকিপূর্ণ বলে জানানো হলেও ভারী বর্ষণে গুহায় পানি বেড়ে যাওয়ার শঙ্কায় দ্রুত অভিযানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়া সেনাবাহিনী একজন কমান্ডার বলেছেন, ‘আবহাওয়ার ওপর নির্ভর করে কিশোরদের উদ্ধারে তিন থেকে চারদিন সময় লাগতে পারে।’

উদ্ধার মিশনে অংশ নেয়া অস্ট্রেলিয়ান এক চিকিৎসক শনিবার গুহায় কিশোরদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর সবুজ সংকেত দেন। এরপরই চূড়ান্ত অভিযানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কর্তৃপক্ষ বলছে, উদ্ধারকারী মিশনে অংশ নিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ডুবুরিরা; বিশেষ করে ইউরোপের। বিবিসি, রয়টার্স, ব্যাংকক পোস্ট, দ্য গার্ডিয়ান।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!