| |

‘যাদের মাথায় শুধু গোবর আছে তারাই এনকাউন্টারের কথা বলে’

প্রকাশিতঃ 8:27 pm | June 24, 2018

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের পশ্চিমবঙ্গের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেছেন, “বিজেপি নেতারা কুকথা বলে বেড়াচ্ছেন, ওদের শিক্ষার মান নেই। তৃণমূল নেতাদের হত্যার কথা বলছেন, ‘এনকাউন্টার’-এর কথা বলছেন! কিন্তু এসব কথা কারা বলে? যাদের কোনো শিক্ষাগত যোগ্যতা নেই তারাই এসব কথা বলে। যাদের মাথায় কিছু নেই, যাদের মাথায় গোবর আছে, তারাই এসব কথা বলে।”

গতকাল শনিবার উত্তর ২৪ পরগণার ঠাকুরনগরে প্রমথরঞ্জন ঠাকুরের ১১৭তম জন্মদিবস পালন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ওই মন্তব্য করেন।

জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বিজেপি’র সমালোচনা করে বলেন, “বিজেপি ভাবছে হিন্দু ধর্মের ধ্বজা তার কাছে আছে। কিন্তু আসলে তা নয়। আমি হিন্দু ধর্মে বিশ্বাসী। আমার ধর্ম শিখিয়েছে অন্য ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। বিজেপি হিন্দু-মুসলিমের সহবস্থানকে ভাঙতে চাচ্ছে। হিন্দু-মুসলমান নিয়ে বিভাজনের রাজনীতি করছে। এটা কোনোদিন করা যায় না।”

জ্যোতিপ্রিয় বাবু গণমাধ্যমকে বলেন, “দীর্ঘ কুড়ি বছর ধরে ঠাকুরবাড়ির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক রয়েছে। ঠাকুরবাড়ির মুখ্যউপদেষ্টা বীণাপাণী দেবী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে নিজের মেয়ের মতো মনে করেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বীণাপাণি দেবীকে নিজের মায়ের মতো শ্রদ্ধা করেন। ঠাকুরবাড়িতে যে কাজই হোক না কেন সেকাজেই তৃণমূল কংগ্রেস থাকবে।”

মতুয়া মহাসঙ্ঘের সংঘাধিপতি ও সংসদ সদস্য মমতা ঠাকুর বলেন, “আমাদের ধর্মই হচ্ছে সম্প্রীতির ধর্ম। যুগযুগ ধরে সেই সম্প্রীতির বার্তা এখান থেকে দেয়া হচ্ছে। আমরা মনে করি মানুষই শ্রেষ্ঠ, মানবতার ধর্মই সবচেয়ে বড় জিনিস। মানুষের সেবার মধ্য দিয়েই ভগবানের সেবা করা হয়।”

ওই অনুষ্ঠানে বিধায়ক দুলাল বর, বিধায়ক সুরজিৎ বিশ্বাস, বিধায়ক রহিমা মণ্ডল, বিধায়ক নির্মল ঘোষ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!