| | মঙ্গলবার, ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই সফর, ১৪৪১ হিজরী |

ইসলামপুরে ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগীতা

প্রকাশিতঃ ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ৩০, ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার : জামালপুর জেলার ইসলামপুর উপজেলায় প্রতি বৎসরের ন্যায় এবারও গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি ঘোড়াদৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইসলামপুরের হাড়গিলা অল রাউন্ডার ইয়ং স্টার ক্লাবের উদ্যোগে গত ২৮এপ্রিল শনিবার নোয়ারপাড়া হাড়গিলা মাঠে অনুষ্ঠিত হয় ঘোড় দৌড় প্রতিযোগীতা। ওই ঘোড় দৌড় প্রতিযোগীতা ও পুরুস্কার বিতরণী সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক মোস্তফা আল মাহমুদ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন মাদারগঞ্জ পৌর মেয়র গোলাম কিবরীয়া কবির, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন। হাড়গিলা অল রাউন্ডার ইয়ং স্টার ক্লাবের সহ-সভাপতি কবিরুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পুরুস্কার বিতরণী সভায় অন্যান্যদের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মশিউর রহমান বাদল, সাবেক চেয়ারম্যান আছাদুজ্জামান, মাহমুদুল্লাহ প্রমুখ। ।
এ প্রতিযোগীতায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা ৬০ জন প্রতিযোগী তাদের স্বস্ব ঘোড়া নিয়ে তিনটি দাপট দৌড় এবং দুটি কদম দৌড়ে অংশ গ্রহণ করেন।

এ ঘোড় দৌড় প্রতিযোগীতায় চ্যাম্পিয়ন মাদারগঞ্জের নজরুল ইসলামকে ফ্রিজ এবং রানার্স আপ আজাহারুল ইসলামকে টেলিভিশন পুরুস্কার দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ওই প্রতিযোগীতায় বিজয়ী আরও ১০ জনকে মুল্যবান শুভেচ্ছা পুরুস্কার দেওয়া হয়েছে।
আগেকার দিনে গ্রাম বাংলার অধিকাংশ রাস্তাঘাট কাঁচা ছিল তাই মেঠোপথে ঘোড়ার যাতায়াত আরামদায়ক এবং সহজতর ছিল। সে কারণে রাজা জমিদারের পাশাপাশি উচ্চ ও মধ্যবিত্ত পারিবারের লোকজন ঘোড়া পালন করতো।

সেকালের রাজা, জমিদারদের এদিক সেদিক যাতায়াত করার জন্য বাহন হিসাবে ঘোড়ার ব্যবহার শুধু নয়। বরং যুদ্ধ ক্ষেত্রে বহি শত্রুর আক্রমনে রোধে ঘোড়ার প্রয়োজনীয়তা ছিল অপরিসীম। তাই যে ঘোড়া যত দৌড়াতে পারতো সে ঘোড়ার ছিল মুল্যে বেশী। একারণে ঘোড়া ক্রয়ের আগে পরীক্ষা করা হতো ঘোড়ার দৌড় কত? কালের আবর্তে সে সব দিন এখন শুধুই স্মৃতি রয়ে যাচ্ছে।

আধুনিক যুগেও ঘোড়া পালেন কিছু সংখ্যক ঘোড়া প্রিয় মানুষ পালন করতো। সেসব ঘোড়া দিয়ে যাতায়াতের পাশাপাশি ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা করা হইত। এখন শহরের পাশাপাশি গ্রাম বাংলার রাস্তাঘাট মেঠোপথ আর নেই। ইঞ্জিনচালিত যানবাহন গর্জন ও চলাচলের কারণে ঘোড়া পালন,যাতায়াত করতে এখন আর তেমন দেখা যায় না। কালের বিবর্তনে ঘোড়দৌড়,কিংবা ঘোড়ার প্রচলন হারিয়ে যাচ্ছে। হয়তো এক সময় ঘোড়ার আর দেখাই মিলবে না।

তাই জামালপুর জেলার ইসলামপর উপজেলার নোয়ারপাড়া এলাকায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি ঘোড়দৌড় প্রতিযোগীতা প্রতি বৎসর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্য ধরে রাখতে আমরা প্রতি বছর এ খেলার আয়োজন করে থাকি।

ঘোড়াদৌড় দেখার জন্য হাজারো জনতার নামে ঢল। দর্শকের উপচে পড়া ভীরে মুহুর্তে ভরে যায় মাঠের কানায়-কানায়। সবাই আনন্দ উল্লাসে ঘোড়া খেলা উপভোগ করে আসছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares