| |

সোনার মানুষ হওয়ার কামনায় মঙ্গল শোভাযাত্রা

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ও সর্বশেষ খবর পেতে আ্যপসটি ইনস্টল করুন

প্রকাশিতঃ 3:17 pm | April 14, 2018

স্টাফ রিপোর্টার :সোনার মানুষের কামনা এবং জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতাকে পরাভূত করে অসাম্প্রদায়িক চেতনার বিকাশের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা।

শনিবার সকাল সোয়া নয়টার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ থেকে এই শোভাযাত্রা বের করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আখতারুজ্জামানের নেতৃত্বে চারুকলা অনুষদ থেকে বের হওয়া এই শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছে লাখো মানুষ।

রাজধানী ঢাকা ছাড়াও সারাদেশে এই শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে। ঢাকাতেও চারুকলা ইনস্টিটিউটের পাশাপাশি বিভিন্ন এলাকায় স্কুল বা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে বের হয় এই শোভাযাত্রা।

তিন দশক ধরে বর্ষবরণের অন্যতম আকর্ষণ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের মঙ্গল শোভাযাত্রা। এবারের শোভাযাত্রার স্লোগান ঠিক করা হয়েছে ‘মানুষ ভজলে সোনার মানুষ হবি।’

শোভাযাত্রাকে ঘিরে গত কয়েকদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা অপপ্রচার চললেও এর কোনো প্রভাব পড়েনি। এসব অপপ্রচারে কান না দিয়ে লাখো মানুষ শোভাযাত্রায় সমবেত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষ এতে অংশ নিয়েছে।

প্রতিবারের মতো এবারও নানা ধরনের জীবজন্তুর বিশালাকারের প্রতিকৃতি নিয়ে বের হয়েছে এই শোভযাত্রা। এছাড়া রয়েছে হরেক রঙের হাতি, বাঘ, ফুল, পাখির প্রতিকৃতি।

নারীরা পরেছেন লাল, সাদা শাড়ি। হাতভর্তি কাঁচের চুড়ি। চুলে বেলি ফুল। শিশুরাও সেজেছে লাল, সাদার সাজে। পুরুষদের সাজও তাই। বাংলার চিরায়ত সাজে নববর্ষ বরণ করছে সবাই।

১৯৮৬ সালে পয়লা বৈশাখে যশোরে একটি সংগঠন এই মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করেছিল। তিন বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউট এই শোভাযাত্রার আয়োজন করে। এরপর বছর বছর এর পরিসর বেড়েছে। বেড়েছে মানুষের অংশগ্রহণ।

বাঙালির প্রাণের এ উৎসব উদযাপনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ, ইনস্টিটিউট এবং ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সংগঠনও পৃথকভাবে বর্ণাঢ্য কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!