| |

কলতাপাড়া সোয়াদ ফিলিং স্টেশনে ভেজাল পেট্রল বিক্রির অভিযোগ

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ও সর্বশেষ খবর পেতে আ্যপসটি ইনস্টল করুন

প্রকাশিতঃ 3:13 pm | January 19, 2018

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার কলতাপাড়ায় সোয়াদ ফিলিং স্টেশনে ভেজাল ও নি¤œমানের পেট্রল বিক্রির অভিযোগ ওঠেছে। এ পাম্প থেকে পেট্রল ঢুকানোর পর চলন্ত অবস্থায় মটর সাইকেলের স্টার্ট বন্ধ হয়ে যায় ও গাড়ী আপ ডাউন করে এরকম অভিযোগ স্থানীয় মটর সাইকেল চালকদের।

এ উপজেলার মহিস্মরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল ওয়াহেদ অভিযোগ করে বলেন প্রায় এক মাস পূর্বে উল্লেখিত পাম্প থেকে পেট্রল ঢুকানোর পর চলন্ত অবস্থায় তার মটর সাইকেল বিকল হয়ে যায়। পরে উক্ত পেট্রল ফেলে দিয়ে অকটেন ঢুকালে মটর সাইকেল সচল হয়। এরপর থেকে ওই পেট্রল পাম্পে পেট্রল ক্রয় করা বন্ধ করে দেন তিনি। একই রকম অভিযোগ করেন গৌরীপুর শহরের উত্তর বাজার এলাকার আলী হায়দার রবিন, মোহাম্মদ আলী, মধ্য ভালুকার ইমতিয়াজ সুলতান জনি, গৌরীপুর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী মুকতাদির খান তুষারসহ স্থানীয় আরো অনেকেই।

গৌরীপুর পৌর শহরের মটর সাইকেল মেকানিক নয়ন মিয়া জানান ওই পাম্পে পেট্রল ঢুকানো পর অনেকের মটর সাইকেলে সমস্যার সৃষ্টি হলে, পেট্রল পরিবর্তনের পর তা সচল হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পেট্রল ব্যবসায়ী জানান, ওই পেট্রল পাম্পের মালিক হাফেজ আজিজুল হক যমুনা ওয়েল কোম্পানীর নাম ব্যবহার করে অধিক মুনাফার জন্য অন্যত্র হতে নি¤œমানের পেট্রল আমদানী করে তা বিক্রি করে মানুষের সাথে প্রতারণা করছেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে নি¤œমানের পেট্রল বিক্রির কথা অস্বীকার করে উত্থাপিত অভিযোগটি উড়িয়ে দিয়ে পাম্পের মালিক হাফেজ আজিজুল হক জানান, তিনি সরাসরি যমুনা ওয়েল কোম্পানী হতে পেট্রল আমদানী করেন। তার পাম্পে কোন ভেজাল অথবা নি¤œমানের পেট্রল বিক্রি করা হয়না। যদি কেউ অভিযোগ করে থাকে তাহলে আমার সাথে কথা বলতে বলবেন।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!