| |

মাদারীপুরে বিদ্যুৎ বিভাগের এক কর্মচারী বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দুর্নীতির অভিযোগ

প্রকাশিতঃ 11:15 pm | October 21, 2017

মোঃ ইব্রাহীম মাদারীপুর  প্রতিনিধি : মাদারীপুর বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মচারী জয়নাল আবেদীনের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দুর্নীতির অভিযোগ উত্থাপন করে শহরের পুরানবাজারে আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জাতীয় বিদ্যুৎ শ্রমিকলীগ নেতা, সিবিএ সাধারণ সম্পাদক মো. নাসিরউদ্দিন আকন।

সিবিএ সাধারণ সম্পাদক মো. নাসিরউদ্দিন আকন অভিযোগ করেন, মাদারীপুর বিদ্যুৎ বিভাগের এলডিএ কাম কম্পিউটার অপারেটর জয়নাল আবেদিনের দাপটে অতীষ্ট মাদারীপুর বিদ্যুৎ অফিস। তিনি কাজ না করে বেতন ভাতা উত্তোলন করে সরকারের আর্থিক ক্ষতি সাধন করছেন। সরকারী বিধান অমান্য করে ঠিকাদারী করে বিভিন্ন অজুহাতে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।

এ ছাড়াও সম্প্রতি সরকারী দলের একাংশের এই নেতা জয়নাল আবেদীন মাদারীপুর ওজোপাডিকো অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী কাওসার আহমেদ হাওলাদারকে হুমকী ও গালাগাল দিয়ে লাঞ্চিত করেন। জয়নাল আবেদিন গত ১৪ মে বিদ্যুৎ বিভাগের লাইন সাহায্যকারী এতোয়ার হোসেন সেরানিয়াবাতকে ফিডার ইনচার্জ, উপকারী প্রকৌশলীর উপস্থিতিতে গালাগাল ও শারিরিকভাবে লাঞ্চিত করেন। এ ঘটনায়  এতোয়ার সেরানিয়াবাত লিখিত অভিযোগ দিলে নির্বাহী প্রকৌশলী জয়নাল আবেদীনকে গত ১৫ মে ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোসহ কৈফিয়ত তলব করলেও আদ্যাবধি সেই কৈফিয়তের জবাব দেয়নি জয়নাল আবেদিন।

এছাড়াও জয়নাল আবেদিন এলডিএ কাম টাইপিস্ট হওয়ায় সে বিদ্যুৎ বন্ধ করার ক্ষমতা রাখে না। তবু সে ঠিকাদারী কাজের সময় নিজস্ব অবৈধ ক্ষমতা খাটিয়ে বারবার বিদ্যুৎ বন্ধ করে জনগণকে ভোগান্তিতে রেখে সরকারের ভাবমুুর্তি ক্ষুন্ন করেছে।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, লাইনম্যান মো. ফারুক হোসেন খলিফা বিএনপি এর সমর্থন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করায় তাকে বদলী করা হয়। এই বদলীর ঘটনায় জয়নাল আবেদিন ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তর অবরুদ্ধ করে রাখে। এসময় জয়নাল আবেদিন নির্বাচিত সিবিএ অফিস ও হিসাব (ক্যাশ) শাখা ৯ অক্টোবর তালা মেরে ঝুলিয়ে রাখে। খবর পেয়ে মাদারীপুর সদর থানা পুলিশ এসে ঐ তালা ভেঙ্গে দেয়।

বুধবার (১৮ অক্টোবর) লিখিত অভিযোগ সূত্রে আরো জানা গেছে, জয়নাল আবেদীন এলডিএ কাম টাইপিস্ট অফিসের কোন কাজ না করে সে ঠিকাদারী ব্যবসা করে। বর্তমান সরকার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিবে অঙ্গিকারবদ্ধ ১৮ শহর প্রোজেক্টেও উন্নয়নমূলক কাজের ঠিকাদারী কাজটি করায় সে খুটি প্রতি ১০ থেকে ২০ হাজার টাকা নিচ্ছে বলে অভিযোগ আছে। এসমব অপকর্মের জন্য জয়নাল আবেদীনকে এলডিএ কাম টাইপিস্ট শ্রমিক সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হয়।

এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আজাদ মুন্সী, সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, সিবিএ সভাপতি সলেমান শেখ, কার্যকরী সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মোল্লা, আবুল কালাম, আবদুল কুদ্দুছ প্রমুখ।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মাদারীপুর বিদ্যুৎ বিভাগের এলডিএ কাম কম্পিউটার অপারেটর জয়নাল আবেদিনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।