| |

পটিয়ায় ছুরিকাঘাতের সিএনজি চালকের মৃত্যু

প্রকাশিতঃ 7:24 pm | October 05, 2017

পটিয়া (চট্টগ্রাম) থেকে সেলিম চৌধুরী : ছুরিকাঘাতের ছয়দিন পর চট্টগ্রামের পটিয়ায় এক সিএনজি চালকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম মোঃ মহিম (৩৫)। সে পটিয়া পৌর সদরের ৫নং ওয়ার্ডের হাজীর পাড়ার মোঃ মুছার পুত্র। বুধবার রাত ১২টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হিন্দু সম্প্রদায়ের দূর্গা পূজার অষ্টমী দিন (বৃহস্পতিবার) এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে একই এলাকার রেফারী হাবিবের পুত্র মোহাম্মদ সেলিম (৪১) ওরফে ক্ষুর সেলিম সিএনজি চালক মহিমকে ছুরিকঘাত করে গুরুতর আহত করে। তাকে ওইদিন প্রথমে পটিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করলেও চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪ অক্টোবর বুধবার রাত ১১ টায় মারা যায়। তার এক ছেলে এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরে পটিয়া পৌর সদরের পোষ্ট মোড় এলাকা, হাজীর পাড়া রোড, তালুকদার বাড়ি রোড, হাবিবুর পাড়া রাস্তার মাথা, আনোয়ারা রোডের রাস্তা মাথা, সবজার পাড়া রাস্তার মাথা, ঈদুল মল্লপাড়া, সোনা মিয়া সও: বাড়ী এলাকায় বেকার ইয়াবা বিক্রী এবং সেবনকারী বখাটে উশৃঙ্খল কিছু যুবক মাদক ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত। তাদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মূলত এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে এলাকাবাসীর ধারণা।

পটিয়া পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গোফরান জানান, পূজার দিন রাতে অতর্কিতভাবে সিএনজি চালককে ক্ষুর সেলিম ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করে। ঘটনার পর পরেই সেলিম গাঁ ঢাকা দিয়েছিল। ঘটনার দিন বিকেলেও তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পটিয়া থানার ওসি শেখ মোঃ নেয়ামত উল্লাহ বলেন, ছুরিকাঘাতে যে যুবক মারা গেছে বলছে তার কোন প্রমান এখনো পুলিশ পাইনি। তবে ময়না তদন্ত শেষে রির্পোট এলেই বুঝা যাবে।

পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিহত মহিমের ভাই নাজিম জানান, সেলিম সহ বেশ কয়েকজন উশৃঙ্খল যুবক তার ভাইকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। ক্ষুর সেলিমকে গ্রেফতারপূর্বক রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে তার সাথে থাকা ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের নাম বেরিয়ে আসবে। তিনি এব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares