| | শনিবার, ৫ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী |

ধোবাউড়া বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

প্রকাশিতঃ ৬:৩৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৭, ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার : ধোবাউড়ায় বন্যায় বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের খেলোয়ার কলসিন্দুর ফুটবল কন্যাদের ফসলসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া বন্যায় ভেসে গেছে পুকুরের মাছ,ভেঙ্গে গেছে রাস্তাঘাট ও পানির নিচে থাকায় নষ্ট হয়েছে আমন ধানের ফসল ও শাকসবজি।

জানা যায়, জাতীয় নারী ফুটবল দলের ৮ খেলোয়ার সানজিদা,মার্জিয়া,মারিয়া,শিউলী আজিম,মাহমুদা,তহুরা,শামসুন্নাহার এবং নাজমার পরিবারের প্রত্যেকেরই ২ থেকে আড়াই একর জমির ফসল পানির নিচে তলিয়ে যায়। এতে অধিকাংশ ফসলই নষ্ট হয়ে গেছে।

নাজমার বাবা আবুল কালাম জানান আমার ২ একর জমির সবটুকুই নষ্ট হয়ে গেছে,মাহমুদার বাবা নবী হোসেন বলেন আমার বাড়ির সামনের রাস্তাটি ভেঙ্গে গিয়ে চলাচলের অসুবিধা হচ্ছে। উপজেলা মৎস অফিসের তথ্য অনুযায়ী ধোবাউড়ায় বন্যায় প্রায় ৮ হাজার পুকুর ভেসে গিয়ে ১৮ কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে।গামারীতলা ইউনিয়নের জবেদ তালুকদার বলেন আমার ফিসারী ডুবে গিয়ে ১০ লাধিক টাকার মাছ ভেসে গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, বন্যার প্রবল স্রোতে নেতাই নদীর বাঁধ ভেঙ্গে মৃত জনাব আলীর ছেলে ফজর আলীর ২ একর ১২ শতাংশ জমির ফসল নষ্ট হয়ে গেছে। একই সাথে নেতাই নদী থেকে আসা বালু ভরাট হয়ে ফসলের তে এখন বালুচরে পরিনত হয়েছে। এ অবস্থায় জমিতে আবাদের সম্ভাবনা ীন হয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে কৃষক ফজর আলী জানান, ব্যাংক থেকে ঋন নিয়ে জমি চাষ করেছিলাম এখন ঋন কিভাবে পরিশোধ করব ভেবে পাচ্ছিনা। ফজর আলীর মত এমন আরও অসংখ্য কৃষকের ফসল নষ্ট হওয়ায় ঋনের বোঝায় দিশেহারা হয়ে পড়েছে কৃষক।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেন, বন্যায় উপজেলার প্রায় ৩ হাজারের বেশী হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়ে গেছে।

উপজেলা প্রকৌশলী শাহিনূর ফেরদৌস জানান, পোড়াকান্দুলিয়া থেকে কাপাসিয়া পর্যন্ত ৯৯০ মিটার রাস্তাটিসহ বেশ কিছু রাস্তাঘাট ভেঙ্গে গেছে।

উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মজনু মিয়া জানান, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা তৈরী করে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হচ্ছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares